পিরোজপুরের জেলা জজকে বদলি কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট



পিরোজপুরের জেলা জজকে বদলি কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট

পরিবর্তন প্রতিবেদক | clock৬:৫৬ অপরাহ্ণ, মার্চ ০৪,২০২০

পিরোজপুরের জেলা জজকে বদলি কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট

আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক সংসদ সদস্য এ কে এম আউয়ালকে কারাগারে পাঠানো পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নানকে প্রত্যাহারের আদেশের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন হাইকোর্ট।

আউয়াল দম্পতিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশের পর বিচারককে বদলি করে তার জামিনের আদেশের খবর সংবাদপত্রে দেখে বুধবার আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে রুল দেয়।

যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে বিচারক মান্নানকে তার পদ থেকে সরিয়ে আইন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্ত করার আদেশ কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ও অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আইন সচিব ও উপসচিবকে (প্রশাসন-১) দুই সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

পরবর্তী আদেশের জন্য আগামী ১১ মার্চ বিষয়টি হাইকোর্ট বেঞ্চের কার্যতালিকায় আসবে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশগুপ্ত।  

দুর্নীতির এক মামলায় জামিন আবেদন নিয়ে মঙ্গলবার সকালে পিরোজপুরের জজ আদালতে গিয়েছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীন।

আউয়াল পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি; তার স্ত্রী লায়লা জেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী।

পিরোজপুরের জেলা ও দায়রা জজ আব্দুল মান্নার জামিনের আবেদন নাকচ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিলে আউয়ালের ক্ষুব্ধ সমর্থকরা শুরু করেন বিক্ষোভ-ভাংচুর।

এই অবস্থায় জেলা জজ আব্দুল মান্নানকে তাৎক্ষণিক বদলি করা হয়। এরপর বিকালে ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজের দায়িত্ব নিয়ে বিচারক নাহিদ নাসরিন আওয়ামী লীগ নেতা আউয়াল দম্পতিকে জামিন দেন।

বুধবার সকালে বিষয়টি হাইকোর্টের পৃথক দুটি বেঞ্চের নজরে আনেন আইনজীবী শিশির মনির ও সাইয়েদুল হক সুমন।

তার মধ্যে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ আইনজীবী শিশির মনিরকে বিষয়টি প্রধান বিচারপতির নজরে আনার পরামর্শ দেন।

অন্যদিকে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আব্দুল কাইয়ুম, মো. ইউনুছ আলী আকন্দ ও মোহাম্মদ আবুল হোসেন বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চের নজরে খবরটি আনার পর তারা স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুল দেন।

জানা গেছে, গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর দুদকের উপপরিচালক মো. আলী আকবর বাদী হয়ে আউয়ালের বিরুদ্ধে খাসজমিতে ভবন নির্মাণ, অর্পিত সম্পত্তি ও পুকুর দখলের অভিযোগে তিনটি মামলা করেন। একটি মামলায় আউয়ালের সঙ্গে তার স্ত্রী পিরোজপুর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী লায়লা পারভীনকেও আসামি করা হয়েছে। গত ৭ জানুয়ারি আউয়াল ও লায়লা পারভীন হাইকোর্ট থেকে আট সপ্তাহের অন্তর্বর্তী জামিন নেন। গতকাল ওই জামিনের মেয়াদ শেষ হলে তারা পিরোজপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন।

ওএস/এসবি

আইন ও অপরাধ: আরও পড়ুন

আলোচিত সংবাদ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ