করোনায় আক্রান্ত হয়ে সাংবাদিক খোকনের মৃত্যু



করোনায় আক্রান্ত হয়ে সাংবাদিক খোকনের মৃত্যু

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক | clock১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২৯,২০২০

করোনায় আক্রান্ত হয়ে সাংবাদিক খোকনের মৃত্যু

দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকার নগর সম্পাদক ও প্রধান প্রতিবেদক হুমায়ুন কবীর খোকন করোনা উপসর্গ নিয়ে রাজধানীর উত্তরা রিজেন্ট হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

আইইডিসিআর সূত্র জানিয়েছে,  সাংবাদিক খোকনের করোনা পজিটিভ এসেছে।  তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েই মারা গেছেন।

সময়ের আলো'র ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক কমলেশ রায় জানান, অসুস্থ থাকায় খোকন গত কয়েকদিন বাসায় অবস্থান করছিলেন। এসময় তিনি একবার স্ট্রোক করেন। মঙ্গলবার দুপুরে তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তাকে রিজেন্ট হসপিটালে নেয়া হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে নেয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ১০টা ২০ মিনিটে দিকে খোকন মারা যান।

কমলেশ রায় জানান, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করোনা সন্দেহে খোকনের মৃত্যুর কথা আইইডিসিআরকে জানিয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী করণীয় পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শাহেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘রাত সোয়া ৯টার দিকে খোকন ভাইকে নিয়ে আমাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তির সময়ই উনার অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। আমাদের ডাক্তাররা চেষ্টা করার মধ্যেই সোয়া ১০টার দিকে তিনি মারা যান।’

খোকন কী সমস্যায় ভুগছিলেন, জানতে চাইলে শাহেদ বলেন, ‘সাসপেক্টেড করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। তবে আমরা রোগ আইডেন্টিফাই করার আগেই তিনি মারা গেছেন। যেই অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে উনারা এসেছিলেন, সেই অ্যাম্বুলেন্সে করেই নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি চলছে।’

সময়ের আলোর সিনিয়র রিপোর্টার হাবিব রহমান বলেন, গত ১৫ দিন ধরে বাসা থেকেই অফিস করছিলেন খোকন। আজকে সকালে শ্বাসকষ্ট ও মাথাব্যথা বৃদ্ধি পায়। এরপর শারীরিক অবস্থা অবনতির দিকে গেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির অ্যাম্বুলেন্সের মাধ্যমে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

উল্লেখ্য, হুমায়ূন কবীর খোকন দৈনিক সময়ের আলো পত্রিকায় নগর সম্পাদক এবং প্রধান প্রতিবেদকের দায়িত্বে ছিলেন। এছাড়া কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম ঢাকার (সিজেএফডি) সভাপতি ছিলেন তিনি। এর আগে তিনি দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার উপ সম্পাদক ও দৈনিক মানবজমিনসহ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন।

সাংবাদিক খোকন ১৯৭৩ সালে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাঙ্গরা বাজার থানার চাঁপিতলা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। স্কুলজীবন পার করেছেন চাপিতলা অজিফা খাতুন উচ্চ বিদ্যালয়ে। পরে দেবিদ্বার সুজাত আলী সরকার কলেজ থেকে সম্মান পাশ করেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে, এক ছেলে রেখে গেছেন।

তার মৃত্যুতে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), কুমিল্লা সাংবাদিক ফোরাম-ঢাকা (সিজেএফডি) সহ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিবর্গ শোক জানিয়েছেন।

এসইউজে

গণমাধ্যম: আরও পড়ুন

আলোচিত সংবাদ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ